অতিরিক্ত চুল উঠার কারণ ও তার প্রতিকার জেনে রাখুন

 মানুষদের বয়স বেড়ে যাওয়ার সাথে সাথে কিন্তু মাথায় টাক পড়ে যায় এটি একটি স্বাভাবিক ব্যাপার কিন্তু অল্প বয়সে টাক পড়ে যাওয়াটা কিন্তু অনেক বড় একটা সমস্যা আমাদের মাঝে বর্তমানে এখন দেখা যাচ্ছে  প্রায় সময় বর্তমান সময়ে একজন কিন্তু ছেলেদের সবথেকে দুশ্চিন্তায় কারণ আছে এই মাথায় চুল না  থাকা অর্থাৎ টাক পরে যাওয়া 

অতিরিক্ত চুল উঠার কারণ ও তার প্রতিকার জেনে রাখুন

বর্তমানে কিন্তু দেখা যাচ্ছে মেয়েরাও এখন চুল নিয়ে কম পরিমাণে ভুগতেছেন না। চুল পড়া রোধ করার জন্য , চুল ঘন আরে সাথে সুন্দর করে তোলার জন্য মানুষেরা কিন্তু কত কিছুই না যে  করে  সেটা কিন্তু বলার বাহিরে   কিন্তু সঠিক পরামর্শ এর অভাবে কিন্তু অনেকেই  ভালো  কিছু এর  পরিবর্তে ভুল চিকিৎসা করেই কিন্তু তারা বিপদে পড়ে যান।  কিন্তু আপনারা যদি একটু সচেতন থাকেন তাহলে কিন্তু আপনারা আপনাদের মাঝে চুল  খুব সহজেই পড়া  থেকে প্রতিরোধ  করতে পারবেন। 





সঠিকভাবে ঘুম না হলে চুল উঠে যায় কেন ?

 

 অনেক রকমের  কারণে কিন্তু আপনাদের মাথার চুল উঠে যেতে পারে  ,  আর এর ভিতরে সবথেকে পরিচিত একটা কারণ হল হরমোনের ওঠা পড়া। হরমোনের ভারসাম্য   বজায় যদি ঠিকভাবে না থাকে তাহলে কিন্তু গোছা গোছা চুল  উঠে যেতে শুরু করে দেবে   রাতে যদি আপনাদের ভালোভাবে ঘুম না হয়বারবার যদি আপনাদের ঘুম  ভেঙ্গে যায় তাহলে কিন্তু আপনাদের  তাপ অবধারিত প্রভাব  পড়ার ফলে আপনাদের হরমোনের উপর  আর এর কারণেই কিন্তু দেখা যায় যে  ফলশ্রুতি  হিসেবে চুল উঠে যেতে শুরু করে দিয়েছে  


আর একবার যদি কোনভাবে হরমোনজনিত  কারণে চুল উঠে যেতে শুরু করে তাহলে কিন্তু দেখা যাবে যে সাধারণ হেয়ার কেয়ার রুটিন  মেনে তার পরেও সেই সমস্যার সমাধান করতে পারবেন না   আর আপনাদের ভিতরে যারা রাতে ভালোভাবে ঘুমাতে পারেন না , তাদের কিন্তু দেখা যায় যে শারীরিক  আর  মানসিক স্ট্রেস  অনেকটাই   বেশি হয়ে থাকে আর যার ফলে কিন্তু দেখা যায় যে তাদের মাথার চুল উঠে যায় অনেক বিশ্রীভাবে।

 

ফাস্টফুডের সাথে কি চুল পড়ে যাওয়ার কোন সম্পর্ক রয়েছে ?

 

ফাস্টফুডে সেই পরিমাণে ফ্যাট থাকে  সেটাকে বলতে বলা হয়ে থাকে  ট্রান্সফ্যাট। গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে , ট্রান্সফ্যাট আমাদের শরীরে শারীরিক আর এর সাথে অন্য সকল  অসুবিধা  করার সাথে সাথে আমাদের হেয়ার রুডকে  দুর্বল করে ফেলতে থাকে ফাস্টফুড  খেতে পারবেনতবে সেটা  পরিমিত পরিমাণেকারণ কোন কিছু অতিরিক্ত পরিমাণে ভালো নাআপনাদের শরীরের জন্য  




 

বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে , তেল আমাদের মাথার চুলটাকে  নরম রাখার জন্য অনেক সাহায্য করেএকটি  জৌলুস দিয়ে থাকে ।তবে আমাদের মাথার  চুল বৃদ্ধির  ক্ষেত্রে কিন্তু এটা খুব বেশি পরিমাণে একটা হেরফের হয়ে থাকে না

 

কি করে রেহাই পেতে পারবেন এই সমস্যা থেকে

 

 আপনারা যদি   একটানা ভাবে   দীর্ঘদিন ধরে চুল উঠে তাকে আর এর সাথে সাথে যদি আপনারা সাধারণতঃ ভাবে পরিচর্যায়  পদোন্নতি যদি না দেখতে পান তাহলে আপনারা কিন্তু আপনাদের নিজেদের ঘুমের   ধরনের দিকে নজর দিতে হবে  আপনাদের কি   গভীর রাত পর্যন্ত জেগে থাকার অভ্যাস রয়েছেআর সেরকম যদি হয়ে থাকে তাহলে আপনাদের এই বদ অভ্যাস বদলে ফেলুন আজকে থেকে   গভীর রাত পর্যন্ত জেগে আপনারা সোশ্যাল   মিডিয়াতে সময় কাটানো দেখা বন্ধ করে দিন   রাতের একটা নির্দিষ্ট সময় আপনারা বিছানায় শুতে যাবেন , আপনাদের হাতের কাছে মোবাইল ফোনে রাখবেন না  আপনাদের ঘরে যেন  অন্ধকার  আর আরামদায়ক হয়ে থাকে সেরকম ভাবে আপনারা অর্থাৎ সেই ঘরে ঘুমাবেন ঘুমাতে যাওয়ার আগে আপনারা আপনাদের নিজেদের পছন্দের গন্ধের এসেনশিয়াল অয়েল আপনাদের মাথার চুলে আর এর সাথে  স্ক্যাল্পে ভালো করে মেখে নিতে পারেন  আর এতে করে  যেমন ভাবে আপনাদের চুল গুলো ভালো থাকবে ,   ঠিক  সেরকম ভাবে কিন্তু আপনাদের ঘুমটা ভালো হবে।

 Read More - চুল পাকা থেকে মুক্তির উপায়  (ঘরোয়া  পদ্ধতিতে)  

ঘুমাতে যাওয়ার আগে কোন রকম চা, কফি ভুলেও খাবেন না  প্রথমে  প্রথমে ঘুম  আসতে কিন্তু একটু অসুবিধা হতে পারেকিন্তু আপনারা এই অভ্যাসটা ছাড়বেন না কখনো  

এক টানা কয়েকদিন প্র্যাকটিস করতে থাকবেনআর আস্তে আস্তে করে  নতুন নিয়মের সাথে আপনাদের শরীরকে মা নিয়ে নিবেন   তবে বেশ কয়েকদিন প্র্যাকটিস করবার  পরেও আপনারা আপনাদের ঘুমের  প্যাটার্নে পরিবর্তন না যদি আনতে পারেন তাহলে আপনার আছে খুশী হবার পরামর্শ নেয়াই আপনাদের জন্য সবথেকে ভালো হবে। 



কিন্তু কি কারণে চুল পড়ে যাচ্ছে ?

 

গবেষণা করে জানা গেছে যে , অল্প  বয়সে দিয়ে চুল উঠে যাওয়া আরে সাথে আমাদের মাথায়  টাক পড়ার  সবথেকে বড় কারণ হচ্ছে অতিরিক্ত পরিমাণে স্ট্রেস

চুলের  সঠিক ভাবে যত্ন না নিলে   চুল উঠে যেতে পারে

. অতিরিক্ত পরিমাণে ব্লিচিং, ডাই  করবার কারণে চুল উঠে যেতে পারে

কম বয়সে চুল উঠে যাওয়ার সবথেকে বড় কারণ হল অস্বাস্থ্যকর ডায়েট।

. টক্সিন এর সাথে  বেশি পরিমাণে  দূষণ  চুলের জন্য কিন্তু  আমাদের মাথার  গোড়া দুর্বল  করে দিতে থাকে   আর যার ফলে কিন্তু আমাদের মাথার চুল আঁচড়াতে  যাওয়ার সময় সেটা উঠে যেতে পারে

. হরমোনের পরিবর্তন, থাইরয়েড অথবা  অনেক ধরনের রোগের কারণে কিন্তু আপনাদের মাথার চুল উঠে যেতে পারে  

 

 অসময়ে চুল পড়ে যাওয়া যেভাবে প্রতিরোধ  করতে পারবেন

 

 

. সঠিক ডায়েট মেনে খাবার খেতে হবে।

. নিয়মিত চুল পরিষ্কার করতে হবে। সপ্তাহে অন্তত  থেকে   বার ভালোভাবে আপনাদের চুল ধুয়ে নিতে হবে। 

. চুল পড়া প্রতিরোধ করার জন্য আপনাদের খাবারের তালিকায় রাখতে পারেন আয়রন, জিঙ্ক  আর এর  সাথে সাথে  ভিটামিন ডি পূর্ণ  খাবারগুলো কিন্তু আপনারা  ইচ্ছে করলে  রাখতে পারেন  

নিজেদেরকে  যথাসম্ভব চিন্তামুক্ত রাখার জন্য সব সময় চেষ্টা করবেন

 

তথ্য - ইন্টারনেট


admin

লেখালেখি করতে ভালো লাগলে, আর সে খান থেকেই এই ওয়েবসাইট খোলা ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

নবীনতর পূর্বতন