চুল পড়া বন্ধ করার উপায় (Ways to stop hair loss)

বেশি পরিমাণে যদি টেনশন করতে থাকেন , অনেক কারণেই আপনাদের মাথা থেকে   চুল পড়ে যেতে পারে ।

চুল পড়া বন্ধ করার উপায় (Ways to stop hair loss)



আর তার সাথে যদি আপনাদের  শরীরে  পুষ্টিকর খাদ্যের অভাব থাকে আর এর সঙ্গে যদি আপনারা প্রত্যেকদিন সাত থেকে আট ঘণ্টা ঘুমান তাহলে কিন্তু আপনাদের চুল  পড়ে যাওয়া একটা স্বাভাবিক ব্যাপার হয়ে  দাঁড়াবে  

 

চুল পড়া বন্ধ করার জন্য আপনাদের  যেরকম নিয়মিত ঘুমানো লাগবে ঘুমানোটা যেরকম জরুরি কিন্তু, সুষম  খাবার খেতে হবে আর তার সাথে সাথে আপনাদেরকে নিয়মিতভাবে শরীরচর্চাটা আপনাদের জন্য অনেকটা দরকারি একটা বিষয়  

 

 চুল  পড়া বন্ধ করার হাত থেকে বাঁচার উপায় গুলো নিচে দেওয়া হল

 

. রাতে যখন আপনার  বিছানাতে  ঘুমাতে যাবেন তখন ঘুমানোর আগে আপনাদের চুলের  গোড়া  থেকে শুরু করে একদম আগা পর্যন্ত  নারিকেলের তেল দিয়ে আস্তে আস্তে করে  ম্যাসাজ  করবেন সকালবেলাতে আপনারা যেটা করবেন সেটা হচ্ছে আপনারা  আপনাদের মাথা  শ্যাম্পু দিয়ে  চুলটাকে একেবারে  ভালো করে ধুয়ে ফেলবেন

. অ্যালোভেরা জেল ব্লেন্ড  করে নিয়ে আপনারা আপনাদের চুলে  1 ঘন্টা পর্যন্ত জাগিয়ে রাখার পরে মাইল্ড শ্যাম্পু  দিয়ে ভালোভাবে ধুয়ে নিবেন।  আর এতে করে কিন্তু আপনাদের চুল পড়া  কমানো আর মাথার ভিতরে ত্বক এর  চুলকানি  অনেকটাই আস্তে আস্তে করে দূর হয়ে যাবে  

. ডিম এর  কুসুম এর সাথে  সামান্য পরিমানে অলিভঅয়েল আর লেবু এর  রস মিশিয়ে নিয়ে আপনারা আপনাদের চুলে  ঘণ্টা  লাগিয়ে রেখে দেবেন আর তারপরে সেটা ধুয়ে ফেলবেন শ্যাম্পু দিয়ে।  আর এটা আপনাদের চুল পড়া বন্ধ একে বারে করে দেবে আর তার সাথে সাথে আপনাদের চুল দ্রুত বৃদ্ধি করতে অনেক সাহায্য করবে।

. অলিভঅয়েল চুল   ম্যাসাজ করে  20 মিনিট পরে আপনারা আপনাদের চুলে   কুসুম গরম পানি   দেওয়ার পরে  শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলে দিবেন

. পেঁয়াজ এর  রস চুল এর  গোড়ায়  15 মিনিট পর্যন্ত লাগিয়ে রাখবেন।  আর তারপরে আপনারা আপনাদের মাথা শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলবেন  

আমলকী  এর  সাথে  শিকাকাই পাউডার আর তার সাথে পানিমিশিয়ে নিয়ে আপনারা পেস্ট  বানিয়ে নেবেন। প্যাকটি চুল এর  গোড়ায় ৪০ মিনিট  লাগিয়ে রাখার পরে আপনারা ধুয়ে ফেলবেন শ্যাম্পু দিয়ে।

 

মেথি ব্যবহার  করতে পারেন  - 

 অর্ধেক  কাপ নারকেল তেল আপনারা  চা চামচ মেথিতারপরে আপ্নারা কয়েক মিনিট ফুটিয়ে নেবেন। ঠাণ্ডা  হয়ে যাওয়ার পরে আপনার চুল এর   গোড়াতে  ম্যাসাজ করবেন ঘণ্টা অপেক্ষা করার পরে আপনারা  মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ভালোভাবে ধুয়ে ফেলবেনতাহলেই হয়ে যাবে  

 

অ্যালোভেরা জেল ব্যবহার  করতে পারেন 

 প্রত্যেক সপ্তাহে আপনারা দুই দিন  অ্যালোভেরা জেল  আপনাদের চুলে লাগাতে পারেন অ্যালোভেরার পাতা  হয়তো আপনারা  জেল সংগ্রহ  করে নিবেন আর তারপরে আপনাদের চুলে লাগাবেন সম্পূর্ণভাবে  অর্থাৎআগা  হতে  একেবারে গোড়া পর্যন্ত। ২০ মিনিট  অপেক্ষা করার পর আপনারা ধুয়ে  ফেলবেনভেষজ শ্যাম্পু  এর সাহায্যে   আর এতে করে কিন্তু আপনাদের মাথার চুল পড়া বন্ধ  হওয়ার সাথে সাথে  ঝলমলে  হয়ে যেতে থাকবে আস্তে আস্তে করে আপনাদের চুল

 

মেহেদি সরিষার তেল

২৫০ মিলি সরিষা এর  তেল আপনারা  ২০টি মেহেদি পাতা দেওয়ার পরে আপনারা উঠিয়ে নিবেন। ঠাণ্ডা  হয়ে যাওয়ার পরে আপনারা ম্যাসাজ  করবেন আপনাদের চুলের গোড়ায়। 20 মিনিট অপেক্ষা করার পরে আপনারা  ভেষজ শ্যাম্পু দিয়ে  ধুয়ে ফেলবেন আর প্রত্যেক সপ্তাহে একদিন করে ব্যবহার করতে পারবেন আপনারা  এই  তেল। 


Read More -


অনলাইন থেকে কিভাবে আয় করা যায় জেনে নিন


নিজেই নিজের ভোটার আইডি কার্ড দেখবো কিভাবে


গুগল অ্যাডসেন্স থেকে আয় করার টি উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন

ইংরেজী মুভি দেখে ইংরেজি শেখার পাঁচটি সহজ উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য



পেঁয়াজের রস ব্যবহার করতে পারেন 

চুল পড়া বন্ধ করার জন্য কিন্তু আপনারা  পেঁয়াজ এর  রস আপনাদের চুলের জন্য অনেক বেশি পরিমাণে কার্যকর একটা পদ্ধতি পেঁয়াজ এর  রস সরাসরি  কিন্তু আসলে আপনাদের  চুলের গোড়ায় ঘষে ঘষে  লাগাতে হবে   ঝাঁঝালো গন্ধ দূর  করতে যদি চান তাহলে আপনারা কয়েক ফোঁটা কিন্তু  এসেনশিয়াল অয়েল  মিশিয়ে নিতে পারেন ২০  মিনিট অপেক্ষা করার পর আপনারা ধুয়ে ফেলবেন এটাকে শ্যাম্পু দিয়ে

 

তেল ব্যবহার করতে পারেন 

অনেক ধরনের তেল  একসাথে মিলে নেওয়ার পরে কিন্তু আপনারা প্রত্যেক সপ্তাহে  ম্যাসাজ  করতে পারেন আপনাদের  চুলে।  আগেই গরম করে নিবেন সামান্য পরিমাণে। ম্যাসাজ  শেষ করার পরে গরম তোয়ালে দিয়ে আপনারা  দিয়ে জড়িয়ে  নেবেন আপনাদের মাথার চুল। ১৫ মিনিট  পরে আপনারা তোয়ালে খুলে অপেক্ষা  করবেন আরো 10 মিনিট   তারপরে আপনারা  শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলবেন  আপনাদের মাথার চুল  

 

গরম বাতাস চুলের জন্য  ক্ষতি করে  :  কোন ধরনের  গরম বাতাস  কিংবা  হিট  চুলকে দেওয়া যাবে না   এটা কিন্তু আমাদের মাথার চুলের জন্য মারাত্মক একটা ক্ষতিকর  প্রভাব ফেলে  

 

admin

লেখালেখি করতে ভালো লাগলে, আর সে খান থেকেই এই ওয়েবসাইট খোলা ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

নবীনতর পূর্বতন